1. doinikuttoron@gmail.com : doinikuttoron.com :
শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৩১ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তর এর উদ্যোগে জি এম কাদের এমপি রোগমুক্ত কামনায় দোয়া এবং মিলাদ মাহফিল। সাভার মডেল থানাধীন এলাকা হতে অটোরিক্সা ছিনতাইকারী সংঘবদ্ধ ০৪ জন ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার দেশের নির্বাচন ব্যবস্থা ধসে পড়েছে- গোলাম মোহাম্মদ কাদের নির্বাচন ব্যবস্থা এভাবে চলতে থাকলে দেশের রাজনীতি ও রাজনৈতিক দলগুলো হুমকীর মুখে পড়বে – গোলাম মোহাম্মদ কাদের রাজধানীর দারুস সালাম থানাধীন এলাকা হতে মানবপাচারকারী চক্রের ০৩ নারীসহ ০৬ সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪ দারুস সালাম ও শাহ আলী থানাধীন এলাকায় পৃথক অভিযান পরিচালনা করে প্রকাশ্যে চাঁদাবাজি করাকালে ০৭ জন চাঁদাবাজ গ্রেফতার দারুস সালাম থানাধীন এলাকায় প্রকাশ্যে চাঁদাবাজি করাকালে ০২ জন চাঁদাবাজ গ্রেফতার রাজধানীর দারুস সালাম এলাকা হতে তালিকাভূক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী, ২৮ টি মামলার আসামি গ্রেফতার। মুক্তিযুদ্ধের স্বপ্ন এখনো বাস্তবায়ন হয়নি- গোলাম মোহাম্মদ কাদের জাতীয় পার্টির উওর খান থানার ৪৫ নং ওয়ার্ড ও ৬ টা ইউনিট ৩ টা কমিটির সম্মেলন গণতন্ত্র না থাকলে জবাবদিহিতা থাকেনা, বৃদ্ধি পায় দুর্নীতি- গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি। যে সরকার অন্যায় অনাচারের ভারে ন্যুয়ে পড়ে তাদের হঠাতে আন্দোলনের প্রয়োজন হয় না: জিএম কাদের তুরাগ নদীর পাড় হতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে অস্ত্রশস্ত্রসহ ৫ জন ডাকাত গ্রেফতার নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যর মুল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে কুড়িগ্রামে বিএনপির বিক্ষোভ ও সমাবেশ নাগেশ্বরীর ১৪ ইউপিতে নির্বাচন: প্রতীক পেয়েই প্রচারণায় ব্যস্ত প্রার্থীরা

রাজধানীর তেজগাঁও এলাকা থেকে চাকরির দিয়ে এবং চাকরির দেয়ার নামে জাল সনদ-সিল ব্যবহার করার মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎকারী প্রতারক আব্দুল মালেক গ্রেফতার

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২০ জুলাই, ২০২১
  • ৪৮ Time View

র‌্যাব-৪ সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ও তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারা যায় যে, একটি সংঘবদ্ধ পেশাদার চক্র সাধারণ জনগণকে চাকুরী দিয়ে এবং চাকুরী দেয়ার নামে প্রতারণার মাধ্যমে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। উক্ত অভিযোগ যাচাই-বাছাই ও সরেজমিনে অনুসন্ধানের আলোকে র‌্যাব-৪,সিপিএসসি এর একটি আভিযানিক দল গত ১৯/০৭/২০২১ ইং তারিখ রাত ০১.৩০ ঘটিকায় রাজধানীর তেজগাঁও থানাধীন মনিপুরীপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত জালসনদপত্র ও বিভিন্ন নথিপত্রসহ নিম্নোক্ত কুখ্যাত প্রতারকচক্রের মূলহোতাকে গ্রেফতার করেন গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ আব্দুল মালেক (৪২), জেলাঃ কুষ্টিয়া।

উদ্ধারকৃত আলামতঃ
ক। ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র- ১টি
খ। ভুয়া জন্মসনদ- ৬০টি
গ। ভুয়া নাগরিকত্ব সনদপত্র- ১৮টি
ঘ। এতিমখানার ভুয়া প্রত্যয়নপত্র- ০৮টি
ঘ। ৫৫ লক্ষ টাকার এফডিআর কপি
চ। ব্যাংক চেক বই- ০৬টি
ছ। সরকারি কর্মকর্তার ভুয়া সিল- ০৬ টি
জ। ক্লিপ চার্ট- ১টি
ঝ। ল্যাপটপ- ১টি
ঝ। কম্পিউটার সিপিইউ- ১টি
ট। প্রিন্টার- ১টি
ঠ। নগদ ২১০৮৫ টাকা
ড। মোবাইল- ১টি।

মোঃ আব্দুল মালেক ১৯৭৯ সালে কুষ্টিয়া জেলায় জম্মগ্রহন করে। দাখিল ও আলিম পাশ করে স্থানীয় একটি কলেজ থেকে বি.কম এবং এম.কম ডিগ্রী লাভ করে। সে শিক্ষাজীবন শেষ করে ২০০৪ সালে “বাংলাদেশ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর” খামারবাড়ী, ফার্মগেট এ “অফিস সহাকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর” পদে চাকরী পায়। মূলত চাকুরী লাভের পর থেকে চাকুরীপ্রার্থীদের সাথে প্রতারণা করে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নিতে থাকে। এক পর্যায়ে ২০১০ সালে বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির সাথে জড়িত থাকার কারণে তাকে চাকুরী থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর তার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগের সত্যতা প্রাপ্তি সাপেক্ষে তাকে ২০১৫ সালে চাকুরীচ্যুত করে।

তার প্রতারণার কৌশলসমূহ হলো- নিজ এলাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় সে এজেন্ট নিয়োগ করে চাকরিপ্রার্থীদের সংগ্রহের কাজ শুরু করা; সরকারী চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে সে অধিক সংখ্যক চাকুরীপ্রার্থী সংগ্রহের উদ্দেশ্যে ২০১৬ সালে “এমবিশন” নামে একটি কোচিং সেন্টার চালু করা; চাকরীপ্রার্থীদের মধ্য থেকে বিভিন্ন পর্যায়ের কোটা যেমন জেলা কোটা, প্রতিবন্ধী কোটা, মুক্তিযোদ্ধা কোটা, এতিম কোটা, আনসার কোটা প্রভৃতি শ্রেণিকরণ করা এবং উক্ত তালিকা অনুযায়ী প্রার্থীদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্রাদি যাচাই-বাছাই করা; স্ট্যাম্পে চুক্তির মাধ্যমে টাকা অথবা জমির দলিল জমা রাখার শর্তে চাকরীপ্রার্থীদের সাথে সে চুক্তিবদ্ধ হওয়া; চুক্তিশেষে বিভিন্ন মাধ্যম যেমন- লিখিত পরীক্ষায় প্রার্থীর ছবি পরিবর্তন/প্রশ্নফাস/প্রার্থীকে ডিজিটাল ডিভাইসের মাধ্যমে পাশ করানো; নাগরিক সনদপত্র পরিবর্তন, জন্মসনদ পরিবর্তন, চারিত্রিক সনদপত্র, এতিমখানার সনদপত্র, প্রতিবন্ধী সনদপত্র, চেয়ারম্যান প্রত্যয়নপত্র পরিবর্তন সহ যে সব জেলায় অধিক সংখ্যক জনবল নিয়োগে উল্লেখ থাকে জাতীয় পরিচয়পত্রে সে সকল জেলার প্রার্থীর ভুয়া নাম ঠিকানা ব্যবহার করা; কোন চাকুরীপ্রার্থী চুক্তিবদ্ধকৃত টাকা দিতে না পারলে জমাকৃত জমির দলিলের মাধ্যমে প্রার্থীর জমি দখল করা। এছাড়াও যারা এই প্রক্রিয়ায় চাকুরী পেত তাদের’কে জিম্মি করার উদ্দেশ্যে তাদের সব ধরনের কাগজপত্র জমা রাখতো যাতে পরবর্তীতে তাদের কেউ ঝামেলা করলেই তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে ভুয়া নাম ঠিকানা ব্যবহার করে চাকুরী পাওয়ার অভিযোগ দিতে পারে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামী তার কৃত অপকর্মের বিষয়টি স্বীকার করেছে। পলাতক আসামী আব্দুর রাজ্জাক (৫০), আল-আমিন (২৫) এবং অবিনাষ (৩২) সহ তার অন্যান্য সহযোগীদের সহায়তায় তার এই প্রতারণার কার্যক্রম চালিয়ে আসছিলো।


প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায়, আসামীর ঢাকায় অভিজাত এলাকায় তিনটি ফ্ল্যাট ও ধামরাইয়ে ৮.২৫ শতাংশ জমি ছাড়াও কুষ্টিয়া তে একটি সুপার মার্কেট, একটি পাকা বাড়ি, ৪টি ট্রাক, একটা বাস ও ২৫ বিঘা জমি রয়েছে।

SHAHANABD.COM

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

আসুন ধর্ষণ ও শিশু নির্যাতন কে না বলি

© All rights reserved © 2020  doinikuttoron.com
Customized By Zoya Web Host